শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন

স্বস্তির বৃষ্টিতে কৃষকদের আনন্দের জোয়ার

স্বস্তির বৃষ্টিতে কৃষকদের আনন্দের জোয়ার

সাদ্দাম হোসেন, পূর্বধলা :
নেত্রকোনার পূর্বধলায় চলতি বছরের আষাঢ়-শ্রাবণ মাসে তেমন বৃষ্টি না হওয়ায় কৃষকেরা রোপা আমন ধান রোপণ নিয়ে চিয় পরেছিলেন। বৃষ্টি না হলেও অনেকেই সেচ যন্ত্রের মাধ্যমে তাদের জমিতে আমন ধানের চারা রোপণ করছেন। তবে, অনেক কৃষকেরা তাদের জমিতে চারা রোপণ করলেও বৃষ্টি না হওয়াতে মনে ছিলনা স্বস্তি।তবে টানা কয়েক সপ্তাহের তীব্র তাপদাহের পর শ্রাবণের বৃষ্টিতে উপজেলার কৃষকদের মনে এখন আনন্দের জোয়ার বইছে। বর্ষায় সেচ বিহীন কম খরচে আমন ধান চাষ করে লাভের স্বপ্ন দেখছেন তারা। গত কয়েকদিনের দিবাগত রাতের বৃষ্টিতে কৃষকদের মুখে হাসি ফুটেছে। জমিতে চাষ দেওয়া, আগাছা পারষ্কার করা, সার দেয়া, খেতে পানি দেয়াসহ নানান কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন কৃষক।বিগত বছরগুলোতে প্রায় একসাথে কাজ শুরু হলেও এ বছর কিছু লোকদের জমিতে ধানের চারা কালো হয়ে উঠেছে আবার কারো জমিতে চারা লেগে উঠছে কেউবা দিচ্ছেন ঘাস না গজানোর কীটনাশক কেউবা রোপণ করছেন আমনের চারা। শ্রাবণ মাসের দিন প্রায়ই শেষের দিকে, ভালো ফলনের চেষ্টায় সময়ের মধ্যে রোপা আমন ধান লাগাতে উঠে পরে লেগেছে এ উপজেলার কৃষকরা। কৃষকরা বলছেন, বৃষ্টির অভাবে এবার ভরা মৌসুম আমন ধানের চারা রোপণ করতে কিছুটা আগে-পরে হয়েছে। তাতে ধান রোপণে দেরি হলেও ফলনে তেমন প্রভাব পড়বে না। তবে এবছর আমন ধানের আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে এবং বাম্পার ফলন হবে বলে আশা উপজেলার কৃষি বিভাগের। জারিয়া ইউনিয়নের বারহা গ্রামের কৃষক মফিজ উদ্দিন বলেন, আল্লাহর কাছে বৃষ্টি চাইছিলাম শুধু। আজও ভোরে মোনাজাত করে দোয়া করেছি। এখন যা বৃষ্টি হয়েছে এবং জমিতে যে পরিমাণ পানি জমেছে তাতে চারাগুলো রোপণ করে নিতে পারব। অনেক জমিতে রোপণ হয়েও গেছে।
খারছাইল গ্রামের কৃষক সামছুল হুদা নামে এক চাষি বলেন, আকাশের অনবৃষ্টির কারণে এ বছর জমিতে আমন ধান রোপন করতে দেরি হলো। আতকাপাড়া গ্রামের কৃষক জায়েদ আলী বলেন, এবার আমন ধানের ন্যায্য দাম পাবো বলে আশা করছি।
উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম বলেন, চলতি মৌসুমে উপজেলায় ১৯ হাজার ২১০ হেক্টর জমিতে আমন ধান চাষ করা হয়েছে। আবহাওয়ার কারণে রোপা আমন চাষে কিছুটা বিলম্ব হয়েছিলো। চাহিদার বিপরীতে ইউরিয়া, ডিএপি, টিএসপি সারের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। কৃত্রিমভাবে সারের সংকট তৈরি অথবা অতিরিক্ত দামে বিক্রি করার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

শেয়ার করুন

Comments are closed.




© All rights reserved © 2022 Protidiner Kagoj