শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৩:৫২ অপরাহ্ন

বার্সার বড় জয়, উড়ে গেল লিভারপুল

বার্সার বড় জয়, উড়ে গেল লিভারপুল

বার্সেলোনার হয়ে প্রথমবার খেলতে নেমেই দুর্দান্ত হ্যাটট্রিক করলেন রবার্ট লেভান্ডোভস্কি। একইসঙ্গে ভিক্টোরিয়া প্লজেনের বিরুদ্ধে ৫-১ গোলের বড় জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ অভিযান শুরু করেছে জাভি হার্নান্দেজের দল।

বুধবার রাতে ন্যু ক্যাম্পে হওয়া ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে ১৩ মিনিটে কর্নার কিক থেকে বল পেয়ে হেড পাস করেন ফ্রেঞ্চ ডিফেন্ডার জুলস কৌন্ডে। তার পাসে বল পেয়ে মাথায় বল ছুঁইয়ে তা জালে পাঠিয়ে বার্সেলোনাকে লিড এনে দেন আইভরি কোস্ট জাতীয় দলের মিডফিল্ডার ফ্রাঙ্ক কেসি।

৩৪ মিনিটে প্রথম গোলের দেখা পান লেভান্ডোভস্কি। স্প্যানিশ রাইট ব্যাক সের্জি রবের্তোর পাসে বল পেয়ে ডান পায়ের জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন সাবেক বায়ার্ন মিউনিখ তারকা।

এর মাধ্যমে রিয়াল মাদ্রিদ তারকা করিম বেনজেমার করা ৮৬ গোলকে ছাড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় এককভাবে তিন নম্বরে জায়গা করে নিলেন লেভান্ডোভস্কি। শীর্ষে থাকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর গোল সংখ্যা ১৪০। তালিকার দ্বিতীয় স্থানে থাকা লিওনেল মেসি করেছেন ১২৫ গোল।

৪৪ মিনিটে ব্যবধান কমায় চেল রিপাবলিকেরর ক্লাব ভিক্টোরিয়া প্লজেন। ভ্যাকলাভ জেমেলকার ক্রসে বল পেয়ে হেডে নিশানাভেদ করেন মিডফিল্ডার জান সিকোরা।

বিরতির ঠিক আগে যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে উসমানে ডেম্বেলের কাছ থেকে বল নিয়ে লেভান্ডোভস্কি হেডে বল জালে জড়ান।

ম্যাচের ৬৭ মিনিটে ফেররান তরেসের অ্যাসিস্টে বল নিয়ে ডান পায়ের দূরপাল্লার শটে গোল করে লেভান্ডোভস্কি হ্যাটট্রিক পূরণ করেন। তাতে করে তিনি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজের গোল সংখ্যাকে ৮৯-তে উন্নীত করেন। পাশাপাশি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসের প্রথম ফুটবলার হিসেবে ভিন্ন তিন ক্লাবের হয়ে হ্যাটট্রিকের কীর্তি গড়েন।

চার মিনিট পর ডেম্বেলের বাড়ানো বল নিয়ে বাঁ পায়ের শটে বার্সার হয়ে গোলের দেখা পান তরেস।

এদিকে, ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে গত মৌসুমের রানার্সআপ লিভারপুলের এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ মিশন বেশ বাজেভাবে শুরু হয়েছে। নাপোলির বিপক্ষে ৪-১ গোলে হেরেছে অলরেডরা।

ডি বক্সের ভেতর জেমস মিলনারের হাতে বল লাগলে রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজান। ৫ মিনিটে স্পটকিক থেকে পোলিশ মিডফিল্ডার পিওত্র জেলেনস্কি গোল করলে ঘরের মাঠে লিড পায় নাপোলি।

৩১ মিনিটে পিওত্র জেলেনস্কির বাড়ানো বল নিয়ে বাঁ পায়ে লক্ষ্যভেদ করে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ক্যামেরুন জাতীয় দলের মিডফিল্ডার জাম্বো আনগুইসা।

খেলার ৪৪ মিনিটে আবারো গোল হজম করে বসে লিভারপুল। জর্জিয়ান উইঙ্গার খভিচা কাভারাটস্খেলিয়ার অ্যাসিস্টে বল নিয়ে পোস্টের একদম কাছ থেকে ডান পায়ে বল জালে জড়ান জিওভান্নি সিমেওনে। ২৭ বর্ষী জিওভান্নি অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কোচ ডিয়েগো সিমিওনের ছেলে।

৪৭ মিনিটে ডান পায়ের কিকে আবারো গোল করে স্কোরলাইন ৪-০ করেন পিওত্র জেলেনস্কি। দুই মিনিট পর অ্যান্ড্রু রবার্টসনের পাসে বল নিয়ে ডান পায়ের দূরপাল্লার শটে লিভারপুলের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন লুইস দিয়াজ।

জিওভান্নির গোল করার দিনে জয়ের দেখা পেয়েছে তার বাবা ডিয়েগো সিমিওনের অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। পোর্তোর বিপক্ষে ম্যাচটি ছিল বেশ ঘটনাবহুল। নির্ধারিত সময়ের ৯০ মিনিটে গোল পায়নি কোনো দল। অথচ যোগ করা সময়ে খেলা গড়াল ১১ মিনিট, আর তার মাঝেই হয়ে গোল ৩ গোল!

এর আগে ৮১ মিনিটে ইরানি ফরোয়ার্ড মেহদি তারেমি দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লে পোর্তো ১০ জনের দলে পরিণত হয়। যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে

অ্যাঞ্জেল কোরেয়ার পাসে বল নিয়ে বাঁ পায়ের শটে অ্যাটলেটিকোকে লিড এনে দেন স্প্যানিশ ডিফেন্ডার মারিও হার্মোসো। কয়েক মিনিট পরই দলকে বিপদে ফেলেন হার্মোসো। ডি বক্সের ভেতর প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়কে তিনি ফাউল করে বসেন। রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজালে স্পটকিক থেকে ম্যাচে সমতা টানেন কলম্বিয়ান সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার মাটেউস উরিবে।

শেষ বাঁশি বাজার একেবারে আগ মুহূর্তে এক্সেল উইটসেলের কর্নার কিকে বল পেয়ে হেডে গোল করে পোর্তোর কাছ থেকে জয় ছিনিয়ে নেন অ্যান্টনিও গ্রিজম্যান। ২-১ গোলের নাটকীয় জয় পায় অ্যাটলেটিকো।

দিনের আরেক ম্যাচে ইন্টার মিলানের বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতেছে বায়ার্ন মিউনিখ।

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |