শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪, ০৭:০৮ অপরাহ্ন

মসজিদ নির্মাণ কাজের সময় ব্রোঞ্জ সমৃদ্ধ দূর্লভ ধাতব পদার্থ উদ্ধার

মসজিদ নির্মাণ কাজের সময় ব্রোঞ্জ সমৃদ্ধ দূর্লভ ধাতব পদার্থ উদ্ধার

মিল্লাত হাসান,মিঠাপুকুর

রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলায় নারী জাগরণের অগ্রদূত মহীয়সী নারী বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের জন্মভূমির বসতভিটায় পায়রাবন্দ জামে মসজিদ নির্মাণ কাজের সময় ব্রোঞ্জ সমৃদ্ধ প্রত্নতাত্ত্বিক তিনটি নকশাকৃতি দূর্লভ ধাতব বস্তু পাওয়া গেছে।শুক্রবার (২রা সেপ্টেম্বর) বিকেলে নির্মাণ শ্রমিকরা প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনগুলো পায়। পরে তারা সেগুলো লুকিয়ে রাখেন বলে জানা যায়। এ ঘটনা জানাজানি হলে প্রশাসনকে জানান স্থানীয়রা।

শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে স্থানীয় মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থলে যায় মিঠাপুকুর থানার পুলিশ। পরে পায়রাবন্দ ইউনিয়নের দেবীপুর গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে রোকনুজ্জামানের বাড়ি থেকে ২৮ কেজি ৫০ গ্রাম, তকেয়া কেশবপুর গ্রামের তাহের মিয়ার দুই পুত্র আলাল মিয়া ও ইউনুস আলীর বাড়ি থেকে ৩ কেজি ওজনের দুইটি দুর্লভ ধাতব পদার্থ উদ্ধার করা হয়।

এদিকে প্রত্নতাত্ত্বিক এই নিদর্শনটি দেখার জন্য স্থানীয় প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও সাধারণ জনগণ ভিড় জমান। তবে প্রাচীন এই নিদর্শনটির নাম কী হতে পারে, কিংবা এটি রৌপ্য না সোনার তৈরি তা জানা যাবে প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরের লোকজন আসার পর।

পায়রাবন্দ বেগম রোকেয়া সরকারি কলেজের ইতিহাসের প্রভাষক আজিজুল ইসলাম জানান, দুর্লভ এই ধাতব পদার্থগুলো প্রাচীন আমলের ফুলদানী হতে পারে। তবে এখনও নিশ্চিত না।প্রত্নতত্ব অধিদফতরের তাজহাট জমিদার বাড়ির কাস্টোডিয়ান হাবিবুর রহমান জানান, আমরা এখনও সঠিক তথ্য পাইনি। তবে থানা পুলিশের সাথে যোগাযোগ করে সেগুলো হেফাজতের ব্যবস্থা করা হবে।মিঠাপুকুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) জাকির হোসেন জানান, মসজিদের খনন কাজ করতে গিয়ে ধাতব পদার্থগুলো পাওয়া গেছে। সেগুলো উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। প্রত্নতত্ব বিভাগের সাথে যোগাযোগ করে সেগুলো সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে।

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |