শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৩:৪৮ অপরাহ্ন

কেন ভর্তি হবেন নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগে

কেন ভর্তি হবেন নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগে

মো ফাহাদ বিন সাঈদঃ
বিশ্ব জুড়ে বাড়ছে মিডিয়ার প্রভাব। বাংলাদেশের মিডিয়ার পরিধিও দিন দিন বাড়ছে।আসছে নতুন নতুন টিভিচ্যানেল। এসব চ্যানেলে কাজ করার জন্য তৈরি হচ্ছে সুযোগ।মিডিয়াতে কাজ করতে হলে প্রয়োজন কিছু প্রস্তুতির। জানতে হবে চিত্রগ্রহণ, চিত্রনাট্য লেখা, অনুষ্ঠান নির্মাণ কিংবা নাটক ও চলচ্চিত্র নির্মাণ প্রসঙ্গে।
এ বিষয়ে পড়াশোনার জন্য সুযোগ তৈরি করে দিয়েছে ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত বিদ্রোহী কবির স্মৃতি বিজড়িত জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগ।  ‘ছোটবেলা থেকে যাদের স্বপ্ন মিডিয়াতে কাজ করবেন ক্যামেরার সামনে ও  ক্যামেরার পেছনে কাজ করার কৌতূহল রয়েছে তবে বিভাগটিতে স্নাতক পর্যায়ের ভর্তি হয়ে যান।যাদের  স্বপ্ন সের্গেই আইজেনস্টাইর কিংবা সত্যজিৎ রায়ের মত চলচ্চিত্রকার হওয়ার। আবার কেউ কেউ স্বপ্ন দেখে হলিউডের বিখ্যাত চিত্রগ্রাহক গ্রেফ টোলান্ডের মতো হওয়ার।
ফ্রেম…লাইট… ক্যামেরা… অ্যাকশন! যেসব তরুণ-তরুণী চলচ্চিত্র বানানোর স্বপ্নে বিভোর, স্বপ্ন দেখে ‘অ্যাবাটার’, ‘চিলড্রেন অব হেভেন’ কিংবা ‘মাটির ময়না’র মত অসাধারণ দৃশ্যময় চলচ্চিত্র নির্মাণের; তাদের জন্যই প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এই বিভাগটি।
নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগটি ২০১৫ সালে যাত্রা শুরু করে। এটি বাংলাদেশের কোনো কয়েকটি হাতেগোনা কয়েকটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে  প্রতিষ্ঠিত ফিল্ম এবং মিডিয়া সম্পর্কিত পড়াশোনার একটি পূর্ণাঙ্গ বিভাগ।কলা অনুষদের  অন্তর্ভুক্ত এই বিভাগ তথ্য-গণমাধ্যম ও বিনোদনের ওপর বাস্তব, সমালোচনামূলক এবং ইতিহাস বিষয়ক কোর্স পরিচালনা করছে।
নিভৃত সবুজে ঘেরা ময়মনসিংহের ত্রিশালে অবস্থিত বিদ্রোহী কবির এই ক্যাম্পাস। ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগটি এখানেই পরিচালিত হয়। ক্যাম্পাসে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য রয়েছে আবাসিক চারটি সুবিশাল  হল সুবিধা ক্যাফেটিরিয়া,বৃহৎ লাইব্রেরি,বৃহৎ খেলার মাঠ। বিশ্ববিদ্যালয়ের সুবিশাল লাইব্রেরিতে আছে সায়েন্স, বিবিএ, আর্টস,চলচ্চিত্র, সাংবাদিকতা সহ বিভিন্ন বিষয়ের উপর হাজার হাজার  বই। যেগুলো দেশ-বিদেশের বিখ্যাত লেখক, গবেষক, সমালোচক চলচ্চিত্র নির্মাতাদের লেখা।
বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে  ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগেরই সবচেয়ে আধুনিক সুবিধা সম্পন্ন ল্যাব আছে। এই বিভাগটি  ডিজিটাল ফরম্যাটে চলচ্চিত্র নির্মাণ শিক্ষাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে।প্রতিটি কোর্সই আধুনিক চলচ্চিত্র নির্মাণ ধারার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। হাতে-কলমে প্রত্যেক শিক্ষার্থী চিত্রনাট্য লেখা, অভিনয়, চিত্রগ্রহণ, সম্পাদনা, পরিচালনা প্রভৃতি বিষয়ে শিখতে পারে।
এই বিভাগটিতে আছে  ডিজিটাল ক্যামেরা,প্রপেশনাল লাইটস্, বুম, স্পিকার,এডিটিং প্যানেল,মিডিয়া ল্যাব,নিজস্ব লাইব্রেরি এবং চলচ্চিত্র প্রদর্শনী ল্যাব।
ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজ কোর্স পরিচালনা করার পাশাপাশি ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নিয়মিত দেশ-বিদেশের খ্যাতিমান চলচ্চিত্রকার ও চলচ্চিত্র শিল্পীদের জীবন ও কর্মের ওপর সেমিনার আয়োজন করে। প্রতিবছর শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষাসফর ও ক্রিকেট-ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজন করা ছাড়াও বাংলা বর্ষবরণ, বসন্ত উৎসব এবং বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসব ও উল্লেখযোগ্য দিবস পালন করে।পাশাপাশি ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগের শিক্ষার্থীরা অ্যাকাডেমিক পড়াশুনার পাশাপাশি যুক্ত আছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ক্রিয়াশীল সংগঠনের দায়িত্বশীল জায়গায়।
 ফিল্ম ও মিডিয়া বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষিকা মিডিয়া বিভাগে ক্লাস নেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন অঙ্গনের খ্যাতিমান ব্যক্তিত্বরা।এছাড়াও ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগ ৪ বছর মেয়াদী বি.এ এবং ১ বছর মেয়াদী মাস্টার্স কোর্স পরিচালনা করে।
বিভাগের শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলে জানাযায় , ‘ফিল্ম মেকিংয়ের ওপর তাত্ত্বিক ও প্র্যাক্টিক্যাল বিষয়ে শিখতে পেরেছি। স্যাররা ধরিয়ে দিয়ে চিত্রনাট্য, চিত্রগ্রহণ ক্লাসগুলো নেন। একটি টেলিভিশন বা ফিল্ম প্রোডাকশন কীভাবে বানাতে হয় সে সম্পর্কে জানতে পেরেছি। ’
এ প্রসঙ্গে বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ড.তুহিনুর রহমান তুহিন (অবন্ত)বলেন, ‘বর্তমান যুগ প্রযুক্তিনির্ভর। মিডিয়ার প্রয়োজন ও প্রসারতা দুই-ই বাড়ছে দিন দিন। সেইসঙ্গে বাড়ছে মিডিয়ায় কাজ করার সুযোগ। যারা মিডিয়াতে কাজ করতে আগ্রহী, প্রতিষ্ঠিত হতে চায় চলচ্চিত্র নির্মাতা হিসেবে তাদের ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া সম্পর্কে পড়ার বিকল্প নেই। ’
ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আরও বলেন, ‘পৃথিবীর সর্বত্র এরইমধ্যে ডিজিটাল ফরম্যাটে চলচ্চিত্র নির্মাণের ধারা শুরু হয়ে গেছে।আগামীতে  আরও ছড়িয়ে পড়বে। সে জায়গা থেকে আমরা ডিজিটাল ফরম্যাটে চলচ্চিত্র নির্মাণ শিক্ষাকে প্রাধান্য দিচ্ছি। কোর্সগুলোও ডিজিটাল ফিল্ম মেকিং উপযোগী করে সাজানো হচ্ছে।’

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |