রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১১:৩১ অপরাহ্ন

বিশ্বনেতাদের চোখে বঙ্গবন্ধু

বিশ্বনেতাদের চোখে বঙ্গবন্ধু

বিশ্বনেতাদের চোখে কেমন ছিলেন বাঙালির আরাধ্য পুরুষ ও আজন্ম প্রেম জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান? এই প্রশ্নের উত্তর জানতে খুব বেশি দূর যেতে হবে না, অনেক বইও পড়তে হবে না। ধানমন্ডির স্মৃতি জাদুঘরের মন্তব্য লেখার বইয়ের মধ্যে সব উজাড় করে লেখেছেন বিশ্বনেতারা। যেন বঙ্গবন্ধুর চরণে সব আবেগ উচ্ছ্বাস আর অগাধ শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন তারা।

জার্মানির সাবেক প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টিয়ান উলফ বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে বলেন, এ স্মৃতি জাদুঘর আমাদের একজন মহান রাষ্ট্রনায়ককে স্মরণ করিয়ে দেয়, যিনি তার জনগণের অধিকার ও মর্যাদার জন্য লড়াই করেছিলেন এবং অতিদ্রুত স্বাধীনতা ও জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ছিলেন।

তিনি বলেন, আমি বাঙালি জাতির স্থপতি এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি আমার অশেষ শ্রদ্ধা জানাই।

তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদ্রিম ২০১৭ সালের ১৯ ডিসেম্বর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন। এ সময় মন্তব্য বইয়ে তিনি লেখেন, বাংলাদেশের মহান স্থপতি এবং বাঙালির রাষ্ট্রনায়ক শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতিধন্য বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন আমার জন্য খুবই সম্মানের বিষয়। বঙ্গবন্ধু কতিপয় ষড়যন্ত্রকারী সামরিক কর্মকর্তাদের হাতে নির্মমভাবে শাহাদত বরণ করেছিলেন। তার মৃত্যুর পর প্রায় ৪০ বছর পার হয়ে যাওয়ার পর শেখ মুজিবুর রহমান এখনো ২০ শতকের একজন অন্যতম নেতা হিসেবে স্মরণীয় ও বরণীয়।

তিনি বলেন, তুরস্কের জনগণ এবং মোস্তফা কামাল আতাতুর্কের পক্ষ থেকে আমি একজন মহান নেতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করছি। বাংলাদেশ সফরকালে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করে আমি ব্যক্তিগতভাবে যা প্রত্যক্ষ করেছি, তা আমার হৃদয়কে গভীরভাবে স্পর্শ করেছে। আমি বিশেষ করে উল্লেখ করতে চাই যে, আমরা বাংলাদেশের স্থপতি প্রয়াত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে একই উষ্ণ ভাবাবেগে ডুবে আছি এবং তার স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করছি।

২০১৫ সালের ৬ জুন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পরিদর্শন শেষে মন্তব্য বইয়ে তিনি লেখেন, বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শিতা, সংগ্রাম ও আত্মত্যাগ একটি জাতিকে স্বাধীনতার জন্য অনুপ্রাণিত করেছিল এবং সোনার বাংলার স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানের মতো ঘটনা মানব সভ্যতার ইতিহাসে খুবই বিরল। মহান একজন মানবতাবাদী হিসেবে তিনি সব মানুষের জন্য সমতা, সুযোগ ও মর্যাদার মহান প্রবক্তা।

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |