শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪, ০৭:৫৬ অপরাহ্ন

ত্রিশালে কমেছে মহাসড়কে দুর্ঘটনা

ত্রিশালে কমেছে মহাসড়কে দুর্ঘটনা

 কামরুজ্জামান মিনহাজ, ত্রিশাল :

ময়মনসিংহ- ঢাকা মহাসড়কের ত্রিশাল থানা এলাকা অংশে কমেছে অভাবনীয় সড়ক দুর্ঘটনা । গত একমাসে ঘটেনি কোন প্রাণহানির ঘটনা । ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোহাম্মদ মাইন উদ্দিনের নেতৃত্বে ত্রিশাল থানা পুলিশ সড়ক দুর্ঘটনারোধ ও যানজট নিরসনে রাত দিন নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। সড়কে চলাচলরত বেপরোয়া যানবাহন চলাচলে গতি নিয়ন্ত্রন, মোটরসাইকেল চালককে হেলমেট বাধ্যতামূলক, অবৈধ থ্রী হুইলার বন্ধে নিয়মিত অভিযান অব্যাহত থাকায় ত্রিশাল বাস স্ট্যান্ডে যানজট নিরসন ও দুর্ঘটনা হ্রাস পাওয়ার কারন বলে জানিয়েছেন সচেতন মহল। বাস স্ট্যান্ডে অবৈধ থ্রী হুইলার স্ট্যান্ড, মহাসড়কে থ্রী হুইলার চলাচল,উল্টো পথে যান চলাচল দুর্ঘটনার প্রধান কারন বলে মনে করেন সংশ্লিষ্ট মহল। দুই মাস আগেও চোখে পড়ত ত্রিশাল বাস ষ্ট্যান্ডের যানজট,অবৈধ থ্রী হুইলার এর ষ্ট্যান্ড। থানা পুলিশের অভিযানে এখনকার চিত্র সম্পূর্ণ বিপরীত। নেই কোন যানজট, নেই কোন অবৈধ থ্রী হুইলার স্ট্যান্ড। ফলে সাধারন যাত্রীরা স্বাচ্ছন্দে চলাচল করতে পারছে। পথচারিদের নিরাপদে সড়ক পারাপারেও সহযোগীতা করছে পুলিশ। পুলিশ সদস্যদের ক্লান্তিহীন পরিশ্রমের ফলে হ্রাস পেয়েছে সড়কে যানবাহন দূর্ঘটনা।

দ্রুত যানবাহন চলানোর প্রবনতা হ্রাস,ওভারটেকে নিরুৎসাহিত করা, সচেতনতা বৃদ্ধি, ফিটনেসহীন যানবাহন চলাচল বন্ধ ,সড়ক যানবাহন সেক্টরে শৃঙ্খলা জোরদারকরণ এবং দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণে সম্প্রতি ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক মো: এনামুল হক, জেলা পুলিশ সুপার, উপজেলা প্রশাসনসহ সকল শ্রেনী পেশার মানুষকে নিয়ে জনসচেতনতায় সভা করেন। সভার পর থেকে ওসি মাইন উদ্দিন জনসাধারণের মতামত নিয়ে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে ময়মনসিংহ- ঢাকা মহাসড়কের ত্রিশাল অংশে সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনেন। মাত্র ২৮ দিনের অনাকাক্সিক্ষত হতাহতের ঘটনা ঘটেনি । অনভিজ্ঞ ড্রাইভারদের নিয়ন্ত্রণ, চালককে সচেতন করে চলেছেন ওসি । পাশপাশি যানজট নেই ত্রিশালে ।

সি মাইন উদ্দিন প্রতিদিনের কাগজকে বলেন, নিরাপদ ড্রাইভিংয়ের জন্য গাড়ি চলানোর সময় কথা বলা থেকে বিরত থাকতে হবে। প্রতিযোগিতা করে অনেক ড্রাইভার গাড়ি চালিয়ে থাকেন। এটি সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ। প্রত্যেকটি গাড়ির দুটি লুকিং গ্লাস থাকে। একটি ডান হাতের পাশে আরেকটি বাম হাতের পাশে। গাড়ি চালানোর সময় লুকিং গ্লাস দেখা জরুরি। গাড়ি চালানোর সময় চালক নেশাগ্রস্ত থাকার কারণে দুর্ঘটনা ঘটে। তাই নেশাগ্রস্ত অবস্থায় গাড়ি চালানো থেকে বিরত থাকার আহবান জানান তিনি ।নিজের ও পরিবারের জীবন রক্ষায় মহাসড়কে থ্রী হুইলারে চলাচল না করতেও সকলকে অনুরোধ করেন।মহাসড়কে থ্রী হুইলার বন্ধ হলে সিএনজি,অটো ছিনতাইও বন্ধ হবে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |