শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪, ০৮:৩৩ অপরাহ্ন

শেরপুরে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা

শেরপুরে স্ত্রীকে গলা কেটে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা

শেরপুর প্রতিনিধি:
শেরপুরে স্ত্রীর গলা কেটে হত্যার পর স্বামী কীটনাশক করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। সোমবার (২৯ আগস্ট) সকাল সাতটার দিকে সদর উপজেলার ভাতশালা ইউনিয়নের বয়রা পরানপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূর নাম পারভীন বেগম (৩২)। খবর পেয়ে পরে সকাল নয়টার দিকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। পারভীন ভাতশালা ইউনিয়নের বয়রা পরানপুর গ্রামের সোহরাব আলীর মেয়ে।

এদিকে অভিযুক্ত স্বামী মো. শফিকুল ইসলামকে (৩৮) পুলিশ হেফাজতে শেরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শফিকুল ইসলাম একই ইউনিয়নের হাওড়া গ্রামের মন মিয়ার ছেলে।

জানা যায়, ১০ বছর আগে সদর উপজেলার বয়ড়া পরানপুর গ্রামের পারভীনের সাথে একই ইউনিয়নের হাওড়া আমতলার শফিকুলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের সংসারে ৮ বছরের এক কন্যা সন্তান সুমি ও ৬ বছরের ছেলে পারভেজ রয়েছে। এদিকে গত কয়েক মাস ধরে স্ত্রী পারভীন বেগম ও স্বামী শফিকুলের মধ্যে পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী পারভীন দুই মাস পূর্বে স্বামীর বাড়ি হাওড়া আমতলা গ্রাম থেকে বয়ড়া পরানপুরে তার বাবার বাড়িতে চলে আসে। পরে পৌরসভার নাগপাড়া মহল্লার আল বারাকা প্রাইভেট হাসপাতালে আয়া পদে চাকুরি নেয়।

রবিবার রাতে শফিকুল ইসলাম শ্বশুর বাড়িতে আসে এবং রাতের খাবার শেষে তারা স্বামী স্ত্রী শুয়ে পড়েন। পরে সোমবার ভোররাতে কোন এক সময় ঘুমন্ত পারভীন বেগমকে স্বামী শফিকুল ইসলাম ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে (জবাই) করে হত্যা শেষে সে নিজে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।
শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোহাম্মদ হান্নান মিয়া ও সদর থানার ওসি বছির আহমেদ বাদল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
সদর থানার ওসি বছির আহমেদ বাদল বলেন, এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। হত্যার রহস্য উদঘাটনে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |