রবিবার, ১৪ Jul ২০২৪, ১১:৩৬ পূর্বাহ্ন

দীর্ঘ ২০ বছরেও সম্মেলন না হওয়ায় ভারপ্রাপ্ত দিয়ে চলছে গৌরীপুর আ. লীগ

দীর্ঘ ২০ বছরেও সম্মেলন না হওয়ায় ভারপ্রাপ্ত দিয়ে চলছে গৌরীপুর আ. লীগ

মো. হুমায়ুন কবির,গৌরীপুর
 ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলা। এই উপজেলাটি এক সময় ছিল রাজা-জমিদারের র্তীর্থভূমি। ১ টি পৌরসভাসহ এ উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন। জাতীয় নির্বাচনে ময়মনসিংহ-৩ সংসদীয় আসন এটি। এক সময় জাতীয় রাজনীতিতে এ উপজেলার সমৃদ্ধ অবস্থান থাকলেও বর্তমান সময়ে রাজনৈতিক হত্যাকান্ডসহ নানা ইস্যুতে বিপর্যস্থ এ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম।
সর্বশেষ ২০০৩ সালে সম্মেলনের মাধ্যমে উপজেলা আওয়ামীলীগের কমিটি হলেও এরপর আর কোন সম্মেলন হয়নি। এই র্দীঘ সময়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের ৬৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির প্রায় ২৩ জন ইতিমধ্যে মৃত্যুবরণ করেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন আওয়ামীলীগ নেতারা।
এর মধ্যে আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক স্বাস্থ্য-প্রতিমন্ত্রী  ডাঃ ক্যাপ্টেট (অব:) মজিবুর রহমান ফকির ও সাধারন সম্পাদক বাবু বিধু ভূষন দাস প্রয়াত হওয়ায় ভারপ্রাপ্ত দিয়েই চলছে দলের এই দু’টি র্শীষ পদ।
সেই সাথে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারন সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র হত্যাকান্ডের ঘটনায় পৌর কমিটির সভাপতি বর্তমান পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম আসামি হওয়ায় এবং বিগত পৌর নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় সাংগঠনিক ভাবে এই কমিটি এখন অকার্যকর বলে দাবি করেছেন স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতারা।তবে দলীয় কর্মসূচী পালনে উপজেলা আওয়ামীলীগের সরবতা থাকলেও সাংগঠনিক কাঠামোতে চলছে বেহাল দশা। এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক ম. নূরুল ইসলাম।
তিনি জানান, ২০১৬ সালে একবার উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনের তারিখ ঘোষনা হয়েছিল। কিন্তু শেষতক সম্মেলন হয়নি। এখনো সম্মেলনের তারিখ হবে বলে কালক্ষেপন হচ্ছে। এতে দল সাংগঠনিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।
প্রবীণ এই নেতা আরও জানান, সামনে নির্বাচন- এ অবস্থায় দলকে শক্তিশালী করতে হলে দ্রুত সম্মেলনের কোন বিকল্প নেই। আমরা বিভাগীয় সাংগঠনিক টিম ও জেলার নেতাদের সাথে কথা বলেছি, তারা বলেছে সম্মেলন হবে। তবে আমরা চাই দ্রত সম্মেলন করে যোগ্য নেতৃত্বে নতুন কমিটি গঠন করা হোক। তাঁর এই বক্তব্যে সাথে একমত পোষন করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ইকবাল হোসেন জুয়েল।  তিনি জানান, র্দীঘ নেতৃত্ব শূন্যতায় স্বাভাবিক ভাবেই দলের সাংগঠনিক কাঠামো দূর্বল। তবে সংগঠনে কোন গ্রুপিং বা কোন্দল নেই, দলীয় সকল কর্মকান্ড সরব ভাবে পালন হচ্ছে। যা বর্তমান নেতৃত্বের সফলতা বলে আমি মনে করি।
তবে সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্বে কমিটি গঠিত হলে সংগঠন আরও বেশি শক্তিশালী হবে বলেও জানান তিনি।   এবিষয়ে জানতে একাধিকবার ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলের সাথে যোগাযোগ করেও তাঁর বক্তব্য জানা যায়নি। তবে জেলা আওয়ামীলীগের একাধিক নেতা বলেন, গৌরীপুর আওয়ামীলীগের সম্মেলনের তারিখ দ্রত সময়ের মধ্যে ঘোষনা হবে। সে লক্ষ্যে সাংগঠনিক টিমের সাথে কথা হয়েছে। গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হেলাল আহম্মেদ বলেন, নির্দেশ পেলেই আমরা সম্মেলনের জন্য সকল প্রস্তুতি গ্রহন করব।

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |