রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ১১:৫৫ অপরাহ্ন

ভারতের বিপক্ষে প্রতিশোধের মিশনে পাকিস্তান

ভারতের বিপক্ষে প্রতিশোধের মিশনে পাকিস্তান

চলমান এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বে দেখা হয়েছিল ক্রিকেটের দুই চিরপ্রতিন্দ্বন্দি ভারত-পাকিস্তানের। দুই দলই ইতিমধ্যে সুপার ফোর নিশ্চিত করেছে। সুপার ফোরে আজ রোববার আবারও মুখোমুখি হতে যাচ্ছে ভারত ও পাকিস্তান।

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ মানেই বাড়তি উন্মাদনা। গত সপ্তাহের মত আরও একবার ভারত-পাকিস্তানের ক্রিকেট যুদ্ধ দেখবে ক্রিকেট ভক্তরা। দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় রোববার রাত ৮টায় শুরু হবে।

পাকিস্তানের জন্য এই ম্যাচটি প্রতিশোধের। কারণ গ্রুপ পর্বে ভারতের কাছে ৫ উইকেটে হেরেছিল তারা। টস হেরে প্রথমে বোলিং করতে নেমেছিল ভারত। ১২৮ রানের মধ্যে পাকিস্তানের ৯ উইকেটের পতন ঘটান ভারতের দুই পেসার ভুবেনশ্বর কুমার ও হার্ডিক পান্ডিয়া।

তবে শেষ ব্যাটার শাহনাওয়াজ দাহানির ৬ বলে ১৬ রানের ঝড়ো ইনিংসে লড়াকু স্কোর পায় পাকিস্তান। সব উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রান করে পাকিস্তান। ভুবেনশ্বর ৪ ও হার্ডিক নেন ৩ উইকেট।

১৪৮ রানের টার্গেটে শুরুটা খারাপই হয়েছিল ভারতের। শুরুর ধাক্কা সামলে উঠলেও রানের তোলার গতি ধীরলয়ে ছিলো টিম ইন্ডিয়ার। তাই শেষ দিকে আস্কিং রেট ১১ স্পর্শ করে ভারতের। এরপর ব্যাট হাতে ঝড় তুলেন হার্ডিক। ১৭ বলে অপরাজিত ৩৩ রান করে ভারতের জয় নিশ্চিত করেন তিনি।

পাকিস্তানকে হারানোর পর হংকংকে ৪০ রানে হারিয়ে সুপার ফোরে উঠে ভারত। আর গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে হংকংকে ১৫৫ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে সুপার ফোরে উঠে পাকিস্তান।

প্রথম ম্যাচে ভারতের কাছে হারলেও আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরেনি পাকিস্তানের। হংকংয়ের বিপক্ষে জয়, তেমনটাই প্রমাণ করে।

ফের ভারতের বিপক্ষে নামতে পুরোপুরি প্রস্তুত পাকিস্তান। এবার গ্রুপ পর্বে হারের প্রতিশোধ নিতে মরিয়া তারা। পাকিস্তানের সহ-অধিনায়ক শাদাব খান বলেন, “গ্রুপ পর্বে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে আমরা ভালো ক্রিকেট খেলেছি। ১৪৭ রানের পুঁজি নিয়েও বোলাররা যেভাবে লড়াই করেছে সেটি প্রশংসনীয়। এবার আর ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে পুরনো ভুল করতে চাই না। দলের সবাই জয়ের জন্য মুখিয়ে আছে।”

শতভাগ জয় নিয়ে সুপার ফোরে উঠে চনমনে ভারতও। পাকিস্তানের বিপক্ষে আবারও জয়ের ব্যাপারে আশাবাদি তারা। ভারতের ওপেনার লোকেশ রাহুল বলেন, “আমরা জয়ের মধ্যেই আছি। এই ধারাটা অব্যাহত রাখতে চাই। তাই আরও একবার পাকিস্তানকে হারাতে মরিয়া পুরো দল। তবে কাজটি খুবই কঠিন। প্রথম ম্যাচের মত ব্যাট-বলে পারফরমেন্স করতে পারলে, এবারও জয় পেতে সমস্যা হবে না আমাদের।”

২০১২ সালে সর্বশেষ দ্বিপাক্ষীক সিরিজ খেলেছিল ভারত ও পাকিস্তান। রাজনৈতিক সমস্যার কারণে দ্বিপাক্ষীক সিরিজ খেলে না দু’দেশের ক্রিকেট বোর্ড। তাই আইসিসির ইভেন্ট বা এশিয়া কাপেই মুখোমুখি হতে হয় দু’দলের।

টি-টোয়েন্টিতে এখন পর্যন্ত ১০ বার মুখোমুখি হয়েছে ভারত-পাকিস্তান। সেখানে ৮ বার জিতেছে ভারত। ২ বার জয় পায় পাকিস্তান। আর এশিয়া কাপের মঞ্চে মোট ১৬ বার মুখোমুখি হয় ভারত-পাকিস্তান। তাতে জয়ের পাল্লা ভারী ভারতেরই। ৯ বার জয় পায় ভারত এবং ৫ বার জিতে পাকিস্তান। ২টি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।

২০১৬ সালের এশিয়া কাপ হয়েছিলো টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। ঐ আসরে ভারত ৫ উইকেটে হারিয়েছিল পাকিস্তানকে।

পাকিস্তান দল
বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান, আসিফ আলি, ফখর জামান, হায়দার আলি, হারিস রউফ, ইফতিখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ নাওয়াজ, মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), হাসান আলি, নাসিম শাহ, শাহনেওয়াজ দাহানি, মোহাম্মদ হাসনাইন ও উসমান কাদির।

ভারত দল
রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), লোকেশ রাহুল, বিরাট কোহলি, সূর্যকুমার যাদব, ঋষভ পান্ত (উইকেটরক্ষক), দিনেশ কার্তিক, হার্দিক পান্ডিয়া, রবীন্দ্র জাদেজা, রবিচন্দ্রন অশ্বিন, ভুবনেশ্বর কুমার, আর্শদিপ সিং, রবি বিষ্ণই, আভেশ খান, দীপক হুডা ও যুজবেন্দ্রা চাহাল।

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |