সোমবার, ১৫ Jul ২০২৪, ০২:২৫ পূর্বাহ্ন

আপডেট
মাঝরাতে উত্তাল ঢাবি, পদত্যাগের ঘোষণা দিলেন ছাত্রলীগের চার নেতা রাতে হঠাৎ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের ডাক, উত্তপ্ত ঢাবি তাহলে কি রাজাকারের নাতিরা কোটা পাবে, প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্ন সংঘাত যেন না হয় সে লক্ষ্যে কাজ করছে পুলিশ দাউদকান্দির শহীদনগর এমএ জলিল উচ্চ বিদ্যালয়ের কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা কর্ণফুলীতে লালচান্দা বলে বিষাক্ত পিরানহা বিক্রি, প্রশাসনের নজরধারী নেই বাংলা ব্লকেড : সরকারকে শিক্ষার্থীদের ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম পদ্মা নদী ভাঙ্গন রোধে নিজস্ব অর্থায়নে কাজ করছেন, মোস্তফা মুন্সী  চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদান এবং গণপদযাত্রা শুরু বসুন্ধরা সিমেন্টের ব্যবসায়িক সম্মেলন অনুষ্ঠিত
মৃত্যুর হুমকি পেলেন ডি মারিয়া

মৃত্যুর হুমকি পেলেন ডি মারিয়া

স্পোর্টস ডেস্ক: আর্জেন্টিনার ফুটবল সাফল্যের অন্যতম বড় কাণ্ডারি আনহেল ডি মারিয়া। রোজারিও শহর থেকে উঠে আসা এই তারকা  কোপা আমেরিকার ফাইনালে করেছিলেন জয়সূচক গোল। এরপর ফিনালিসিমা এবং বিশ্বকাপের ফাইনালেও গোল ছিল তার। ক্যারিয়ারের সায়াহ্নে চলে এসেছেন প্রতিভাবান এই উইঙ্গার। জানিয়েছেন, এবারের কোপা আমেরিকার পরেই জার্সিটা তুলে রাখতে চান তিনি।কিন্তু পুরো আর্জেন্টিনায় ব্যাপক জনপ্রিয় এই ফুটবলারই কি না এবার নিজের দেশে পেলেন মৃত্যুর হুমকি। রোজারিওতে নিজ বাসায় তার পরিবারের উদ্দেশে হত্যার হুমকি সম্বলিত বার্তা দিয়ে গিয়েছে শহরের দুর্ধর্ষ মাদক চোরাকারবারিরা। সম্প্রতি নিজের শৈশবের ক্লাব রোজারিও সেন্ট্রালে এসে ক্যারিয়ার শেষের কথা বলেছিলেন ডি মারিয়া। এরপরেই পেতে হলো মৃত্যুর হুমকি।

রোজারিও শহরের এক বিশেষ নিরাপত্তাবেষ্টিত আবাসিক এলাকায় বসবাস করেন ডি মারিয়ার পরিবার। দেশে ফিরলে ডি মারিয়া নিজেও সেখানেই থাকেন। সেই এলাকাতেই সোমবার ভোরে হুমকি–সংবলিত কাগজ ছুড়ে ফেলে যায় অজ্ঞাত একটি দল। একটি ধূসর গাড়ি থেকে ছুড়ে ফেলা সেই কাগজে দি মারিয়ার পরিবারের উদ্দেশে লেখা ছিল, আর্জেন্টাইন তারকা যদি শহরে ফেরেন, তাহলে প্রাদেশিক গভর্নরও এই ফুটবলারের পরিবারকে নিরাপত্তা দিতে পারবেন না। ব্রিটিশ পত্রিকা দ্য সান জানায়, ফুনেস হিলস মিরাফ্লোরেস কন্ডোমিনিয়াম নামের একটি আবাসিক এলাকায় কড়া নিরাপত্তার মাঝেই থাকেন আনহেল ডি মারিয়ার পরিবার। স্থানীয় সময় রোববার দিবাগত রাত আড়াইটায় ধূসর গাড়ি থেকে একটি কাগজ তার বাসার সামনে রেখে যাওয়া হয়। এতে লেখা ছিল,‘তোমাদের ছেলে আনহেলকে বলো রোজারিওতে না ফিরতে। সে যদি ফেরে, পরিবারের যেকোনো একজন সদস্যকে আমরা খুন করে তার জীবন ধ্বংস করে দিবো। এমনকি পুয়ারোও তোমাদের বাঁচাতে পারবে না। আমরা শুধু কাগুজে বার্তাই ফেলে যাই না, আমরা বুলেট আর লাশও ফেলে যাই।’

হুমকিতে পুয়ারো নামের মাধ্যমে প্রাদেশিক গভর্নর ম্যাক্সিমিলিয়ানো পুয়ারোর দিকেই ইঙ্গিত করেছে হুমকিদাতারা।  এর আগে লিওনেল মেসিকেও এমন হুমকি দেয়া হয়েছিল। সেখানেও শহরের মেয়রকে মাদক কারবারে জড়িত বলে উল্লেখ করা হয়েছিল।আর্জেন্টিনা ইতিহাসের অন্যতম সেরা দুই ফুটবলার লিওনেল মেসি এবং আনহেল ডি মারিয়ার এই শহর সামাজিক অবক্ষয় এবং মাদক চোরাকারবারির জন্য বিশেষভাবে পরিচিতি পেয়েছে। সান্তা ফে প্রদেশের এই শহরে প্রতি ১০ লাখ মানুষের মাঝে ২২টি হত্যার ঘটনা লিপিবদ্ধ করা হয়। যা অন্যান্য আর্জেন্টাইন শহরের তুলনায় ৪ দশমিক ২ শতাংশ বেশি। এর আগে গতবছর লিওনেল মেসিকেও এমন হুমকি দিয়ে রেখেছিল রোজারিওর মাদক চোরাকারবারে জড়িত একটি গোষ্ঠী। মেসির স্ত্রী আন্তোনেল্লা রোকাজ্জুদের পারিবারিক দোকানে রেখে আসা হয় এই হুমকিসম্বলিত কাগজ।

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |