রবিবার, ১৪ Jul ২০২৪, ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন

আপডেট
ফাঁসছেন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা, ধরা হচ্ছে চাকরিপ্রাপ্তদের ওসি প্রদীপের হাতে নির্যাতিত সাংবাদিকের আহাজারি দুদকের নামে ভয়ঙ্কর চাঁদাবাজির ফাঁদ বিশ্বমানের খেলোয়াড় গড়তে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী মুরাদনগরে অদের খালের অবৈধ ব্রিজটিকে ভেঙেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত, ক্ষোভে সাংবাদিকের উপর হামলা সিরাজগঞ্জে পাওয়া তিন শিশুর সন্ধান চায় সদর থানা পুলিশ ময়মনসিংহ পুলিশ লাইন্স জাদুঘরে আসলে বঙ্গবন্ধুকে চিনতে পারবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গড়ে যাওয়া কর্মস্থানের উছিলায় নুরুল ইসলাম কে আল্লাহ বেহেস্ত নসিব করবে গণপদযাত্রা ও রাষ্ট্রপতির কাছে স্মারকলিপি পেশ কর্মসূচি কোটাবিরোধীদের নিজেকে ‘প্রভু’ দাবি করা এমপি মজিদের বক্তব্যে সমালোচনার ঝড়
বিক্রি বন্ধ হচ্ছে জনসনের বেবি পাউডার

বিক্রি বন্ধ হচ্ছে জনসনের বেবি পাউডার

স্বাস্থ্যঝুঁকির তথ্য এবং বিভিন্ন মামলার মুখোমুখি হওয়ার পর বিশ্বজুড়ে বন্ধ হতে যাচ্ছে বিশ্বখ্যাত স্বাস্থ্যসেবা পণ্য উৎপাদক প্রতিষ্ঠান জনসন অ্যান্ড জনসনের শিশুদের জন্য তৈরি ট্যালকম পাউডার। আগামী বছর থেকে এ পন্য বন্ধ হবে বলে বৃহস্পতিবার কোপম্পানির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়েছে। খবর রয়টার্স এবং বিবিসির।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়, এক বিবৃতিতে জনসন অ্যান্ড জনসন (জেঅ্যান্ডজে) কর্তৃপক্ষ বলেছে, বিশ্বব্যাপী পোর্টফোলিও মূল্যায়নের অংশ হিসেবে ২০২৩ সাল থেকে ট্যালকম পাউডার বিক্রি পুরোপুরি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। এরপর থেকে শতভাগ কর্নস্টার্চ-ভিত্তিক বেবি পাউডার উৎপাদন করা হবে।

কর্নস্টার্চ ভিত্তিক বেবি পাউডার উৎপাদনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। একই সঙ্গে তাদের বর্তমান পণ্যটি সম্পর্ণ নিরাপদ বলেও দাবি কর্তৃপক্ষের। ক্ষতিকারক রাসায়নিকের উপস্থিতির কারণে জনসনের পাউডার ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ায় ২০২০ সালে এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে এ ঘোষণা দিলো কোম্পানিটি।

পরীক্ষা নিরীক্ষায় অ্যাবস্টোস নামের এক ধরনের ক্ষরিকারক রাসায়নিকের উপস্থিতি মেলার অভিযোগ করা হয়। তবে শুরু থেকেই এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে জনসন অ্যান্ড জনসন। তবে তুমুল সমালোচনার মুখে যুক্তরাষ্ট্র এবং কানাডার বাজারে দুই বছর আগে থেকেই বিক্রি বন্ধ করে কোম্পানিটি।

শেয়ার করুন

Comments are closed.




দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ © All rights reserved © 2024 Protidiner Kagoj |